সড়ক দুর্ঘটনায় জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তা নিহত

11

আমতলী(বরগুনা)প্রতিনিধি: পটুয়াখালী-কুয়াকাটা মহাসড়কের আমতলীর খলিয়ান বাস স্ট্যান্ডে মোটর সাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রলি গাড়ীর সাথে ধাক্কায় জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা (এনএসআই) সহকারী পরিচালক মোঃ আল আমিন (৩৫) নিহত এবং ফিল্ড অফিসার আবু তাহের শুভ আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত শুভকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনা ঘটেছে শুক্রবার রাত পৌনে ১০ টার দিকে। পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ওই রাতেই পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। নিহত আল আমিন জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার বরগুনা অফিসে সহকারী পরিচালক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। জানা গেছে, জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার বরগুনা অফিসে কর্মরত সহকারী পরিচালক মোঃ আল আমিন ও ফিল্ড অফিসার মোঃ আবু তাহের শুভ তদন্ত কাজে শুক্রবার বিকেলে মোটর সাইকেলে কলাপাড়া গিয়েছিল। তদন্ত শেষে বরগুনায় ফেরার পথে পটুয়াখালী-কুয়াকাটা মহাসড়কের আমতলী খলিয়ান বাসস্ট্যান্ডে মোটর সাইকেল নিয়ন্ত্রন হারিয়ে স্ট্যান্ডে দাড়ানো একটি মাহেন্দ্র গাড়ী পিছনে ধাক্কা লাগে। এতে ঘটনাস্থলেই সহকারী পরিচালক মোঃ আল আমিন নিহত এবং ফিল্ড অফিসার মোঃ আবু তাহের শুভ গুরুতর আহত হয়। স্থানীয়দের সহায়তায় পুলিশ তাদের উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। ওই হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মোসাঃ জান্নাতুল আক্তার সহকারী পরিচালক আল আমিনকে মৃত ঘোষনা করেন এবং আবু তাহেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করেছেন। ওই রাতের পুলিশ নিহতের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে এবং ট্রলিটি জব্দ করে থানায় আনা হয়। নিহত আল আমিনের বাড়ী শরীয়তপুর জেলার সুবেদারকান্দি গ্রামে। তার বাবার নাম সিকিন আলী সিকদার। প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন বলেন, খলিয়ান বাস স্ট্যান্ডে অবস্থানরত একটি ট্রলি গাড়ীর পিছনে মোটর সাইকেলের স্ব-জোরে ধাক্কা লাগে। এতে ঘটনাস্থলেই আল আমিন নিহত হন। তারা আরো বলেন, পুলিশে খবর দিলে তারা এসে নিহত ও আহতকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়। আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার মোসাঃ জান্নাতুল আক্তার বলেন, হাসপাতালে আনার পুর্বেই জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার সহকারী পরিচালক আল আমিন নিহত হয়েছেন। তিনি আরো বলেন, আহত আবু তাহের শুভকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আমতলী থানার ওসি একেএম মিজানুর রহমান বলেন, রাতেই জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার বরগুনা অফিসে কর্মরত সহকারী পরিচালক আল আমিনের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।