দিরাই আ.লীগের সম্মেলনে সংঘর্ষে মৃত্যুর খবর সত্য নয়: কাদের

17

ঢাকা: সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে দুই পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত হওয়ার খবর সত্য নয় বলে দাবি করেছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। রাজধানীর বনানীতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ—বিআরটিএর কার্যালয়ে মঙ্গলবার জাতীয় সড়ক নিরাপত্তা কাউন্সিলের ২৯তম সভায় সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তিনি একথা বলেন। ওবায়দুল কাদের গণমাধ্যমকর্মীদের আওয়ামী লীগ সম্পর্কে মিথ্যা খবর দেওয়া থেকে বিরত থাকার অনুরোধ করেন। বলেন, ‘আমাদের সম্পর্কে মিথ্যা খবর দেয়া থেকে বিরত থাকবেন। এটা আমার অনুরোধ।’ সোমবার দিরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনস্থলে দলের দুই পক্ষের সংঘর্ষ হয়। অর্ধশত আহত হওয়ার পাশাপাশি সেখানে আজমল হোসেন চৌধুরী নামের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক। দিরাই উপজেলা সম্মেলনে ‘ছোটখাটো একটা ঘটনা’ ঘটেছিল জানিয়ে ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘সেখানে বিদ্রোহীদের মঞ্চে বসা নিয়ে একটা ঘটনা ঘটে। কিন্তু পরবর্তীতে সম্মেলন সুন্দরভাবে শেষ হয়েছিল।’ ‘আজ সকালে পত্র-পত্রিকায় দেখলাম ১ জন মারা গেছে। মৃত হওয়ার সুবাদে এই খবর প্রথম পাতায় উঠে এসেছে। কিন্তু সম্মেলনের আশেপাশে কোথাও এ ধরনের ঘটনা ঘটে নাই। আমি পুলিশ সুপারের সঙ্গে কথা বলেছি। এভাবে সম্মেলন নিয়ে নিউজ করা…।’ সাংবাদিকদের বন্ধু আখ্যায়িত করে তাদের উদ্দেশ্যে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ইটস এ ফলস (মিথ্যা)। এটা ভুল। এখন আপনারা খবর নিতে পারেন। কী কারণে লোকটার মৃত্যু হয়েছে।’ ‘এভাবে যদি নিউজ করেন পুরোপুরি অবহিত না হয়ে। যদি কেউ মারা যায় সম্মেলনে সে ক্ষেত্রে তো প্রমাণ থাকবে। কোনোভাবেই সম্মেলনের সাথে এ ঘটনা যুক্ত নয়। স্ট্রোক করেছে আপনারা (সাংবাদিক) খবর নেন।’ অনুষ্ঠানে রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও মাদারীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য শাজাহান খান, পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন ও সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।