ইকুয়েডরের কাছে ২-০ গোলে হেরে বিশ্বকাপ শুরু কাতারের

11

স্পোর্টস রিপোর্ট: নিজ দেশে অনুষ্ঠিত ফুটবল বিশ্বকাপটা স্মরণীয় করে রাখতে পারল না স্বাগতিক কাতার। লাতিন আমেরিকার দেশ ইকুয়েডরের কাছে হেরেই বিশ্বকাপের মিশন শুরু করল মধ্যপ্রাচ্যের দেশটি। এনার ভ্যালেন্সিয়ার জোড়া গোলে ২-০ গোল ব্যবধানে জিতে বিশ্বকাপের ২২তম আসর শুরু করল ইকুয়েডর। রবিবার আল বায়াত স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ফুটবল বিশ্বকাপের এবারের আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে বল দখলে প্রতিপক্ষের সঙ্গে সমান তালে খেলতে থাকলেও আক্রমণে পাত্তাই পায়নি স্বাগতিক কাতার। পুরো ম্যাচের ৪৮ শতাংশ সময় নিজেদের কাছে বল রাখতে পেরেছে কাতার। আর প্রতিপক্ষের গোলবার বরাবর শট নিতে পেরেছে মাত্র দুটি। কিন্তু পায়নি গোলের দেখা। এদিকে পুরো ম্যাচের ৫২ শতাংশ সময় নিজেদের কাছে বল রাখে ইকুয়েডরের ফুটবলাররা। আর কাতারের গোলবার বরাবর মোট পাঁচটি শট নিতে পেরেছে লাতিন আমেরিকান দলটি। ফলে গোলের দেখা পেয়েছে মোট দুটি। ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলা শুরু করেছে ইকুয়েডর। সেই সুবাদে মাঝ মাঠ থেকে ফ্রি কিক থেকে বল পেনাল্টি বক্সের ভেতর গেলে সেখান থেকে টরেসের করা ওভার হিট কিকে বল ভ্যালেন্সিয়ার কাছে গেলে সেখান থেকে হেডে গোল করেন তিনি। কিন্তু ভিডিও এসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভার) –এর সহায়তায় গোলটি বাতিল করেন ম্যাচ রেফারি। মূলত অফসাইডের কারণে গোলটি বাতিল করা হয়েছে। তবে লিড নিতে বেশিক্ষণ সময় নেয়নি ইকুয়েডর। একের পর এক অতর্কিত আক্রমণের মাধ্যমে কোণঠাসা করে রাখে স্বাগতিকদের। পেনাল্টি থেকে গোল করে এনার ভ্যালেন্সিয়া দলকে ১-০ গোলে এগিয়ে নিয়েছেন। আর ম্যাচের ৩১তম মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোল করার মাধ্যমে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ভ্যালেন্সিয়া। দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচে ফিরতে মরিয়া হয়ে উঠে কাতার। চালায় একের পর এক আক্রমণ। কিন্তু তাতে কোনো লাভ হয়নি। পায়নি কোনো গোলের দেখা। অন্যদিকে ইকুয়েডরও আর গোলের দেখা পায়নি। ফলে ২-০ গোল ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে এনার ভ্যালেন্সিয়ারা।