শুক্রবার, ২২ জুন ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৭, ০৭:৪৮:২৭

বাঁধ ভেঙ্গে আমতলী তালতলীর ৪০ গ্রাম প্লাবিত

বাঁধ ভেঙ্গে আমতলী তালতলীর  ৪০ গ্রাম প্লাবিত

বরগুনা থেকে এম এ সাইদ খোকন : উপকূলীয় বরগুনা জেলার  আমতলী ও তালতলীতে টানা বর্ষন ও জোয়ারের পানি  এবং বেড়ি বাঁধ ভেঙ্গে পানি প্রবেশ করে  পানিতে  থৈ থৈ করছে  । সাধারন মানুষের দূভোর্গের কোন শেষ নাই । চারদিকে  পানি আর  পানি ।   

অপর দিকে  আমতলী উপজেলার চাওড়া ইউনিয়নের পশ্চিম ঘটখালী,অঅরপাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের  বালিয়াতলী ও তালতলী  উপজেলার তেতুঁলবাড়িয়ার বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধের ভাঙ্গা বাঁধ দিয়ে জোয়ারের পানি ঢুকে ৪০ গ্রাম প্লাবিত  হয়েছে। আমন ফসলের ব্যাপক ক্ষতির সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। পানিতে এলাকার ঘরবাড়ী তলিয়ে গেছে। অনেক মানুষ বাঁধের উপর আশ্রয় নিয়েছে। 

এদিকে বৈরি আবহাওয়া ও গত চারদিন ধরে প্রবল বর্ষণে জন মানুষ বিপর্যস্ত হয়ে পরেছে। শ্রম ও দিনমজুর মানুষ অর্ধাহার অনাহারে দিনাতিপাত করছে। আমতলী ও তালতলীর বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধের বাহিরের নিম্নাঞ্চল সাগর ও তৎসংলগ্ন পায়রা নদীতে স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৬ ফুট পানি বৃদ্ধি পেয়ে বাড়ী-ঘর তলিয়ে গেছে। এতে দু’উপজেলায় ৬০ হাজার মানুষ দূর্ভোগে পরেছে।

খেপুপাড়া আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানাগেছে, গত ২৪ ঘন্টায় ১৬৯ মিলি মিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। আগামী দুদিন বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বরগুনার পানি উন্নয়ন বোর্ড অফিস সূত্রে জানাগেছে, স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৬ ফুন পানি বৃদ্ধি পেয়ে সাগর ও পায়রা নদী তীরবর্তী নিম্নাঞ্চলের বাড়ী-ঘর তলিয়ে গেছে। 

গত ১২ অক্টোবর রাতে জোয়ারের পানির প্রবল চাপে পশ্চিম ঘটখালী বন্যা নিয়ন্ত্রন বাধের উপর নির্মিত স্লইজটি ভেঙ্গে নদী গর্ভে চলে গেছে। ওই ভাঙ্গা বাঁধ দিয়ে জোয়ারের পানি গ্রামে প্রবেশ করেছে। এলাকার মানুষের ঘর বাড়ী জোয়ারের পানিতে তলিয়ে গেছে। 

অপর দিকে আমতলীর গাজীপুর বন্দরের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও ঘর বাড়ী জোয়ারের পানিতে তলিয়ে রয়েছে । সরেজমিনে গিয়ে দেখাগেছে, বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের ভাঙ্গা বাঁধ দিয়ে প্রবল বেগে পানি প্রবেশ করছে। আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সরোয়ার হোসেন বলেন প্লাবিত এলাকা পরিদর্শন করেছি।  উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জিএম দেলওয়ার হোসেন বলেন ক্ষতিগ্রস্থ  মানুষকে সাহায্য সহযোগীতা করা হবে। 

বরগুনা পানি উন্নয়র বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ মশিউর রহমান বলেন স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৬ ফুট পানি বৃদ্ধি পেয়ে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। তিনি আরো বলেন পশ্চিম ঘটখালী বাঁধ এলাকা আমি পরিদর্শন করেছি।  

জরুরী ভাবে বাঁধ বেঁধে দেয়ার জন্য ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে ।সরোজমিনে দেখা গেছে অব্যাহত বর্ষনে উপজেলা দুটির অধিকাংশ আমন ফসলের ক্ষেত পানির নিছে তলিয়ে রয়েছে । অপরদিকে টানা বর্ষনে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের  দাম বৃদ্ধি পেয়েছে ।

 

 

এই বিভাগের আরও খবর

  পদ্মা সেতু প্রকল্পের ব্যয় তৃতীয় দফায় বাড়ল ১৪০০ কোটি টাকা

  আগামী ২৫ জুন থেকে শিক্ষকরা আমরণ অনশনে যাচ্ছেন

  মাদকবিরোধী অভিযানে সামাজিক অবক্ষয় থেকে রক্ষা পাবে যুবসমাজ: প্রধানমন্ত্রী

  বর্তমান সরকারই নির্বাচনকালীন সরকারের দায়িত্ব নেবে: কাদের

  তিনজন জাতীয় অধ্যাপক হলেন

  বিএনপি কোথায় কী করছে সেই তথ্য সরকারের কাছে আছে : কাদের

  নতুন সেনা প্রধানের দায়িত্ব নিচ্ছেন আজিজ আহমেদ

  একজন বন্দির সুবিধামতো চিকিৎসা করাতে হবে বিষয়টি যৌক্তিক নয়: ইনু

  পেনাল্টিটা ছিল খুবই দুঃখজনক, আমি এর দায় নিচ্ছি : মেসি

  প্রধানমন্ত্রী ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করলেন

  কারাগার থেকে দেশবাসীকে খালেদা জিয়ার ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা



আজকের প্রশ্ন

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন,মাদক সম্রাটতো সংসদেই আছে। তাদেরকে বিচারের মাধ্যমে আগে ফাঁসিতে ঝুলান। আপনি কি একমত?