শুক্রবার, ০৩ এপ্রিল ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

শুক্রবার, ০৪ অক্টোবর, ২০১৯, ০৭:২২:১৩

কোটিপতি ভিক্ষুক - ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ৭ কোটি টাকা!

কোটিপতি ভিক্ষুক - ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ৭ কোটি টাকা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সারাদিন ভিক্ষা করেন হাসপাতালের সামনে । কেউ সেভাবে কোনোদিন তার দিকে ফিরেও তাকায়নি।হঠাৎ একটি ঘটনায় তার নাম এখন সবার মুখে মুখে। ওয়াফা মোহাম্মদ আওয়াদ। লেবাননের এই নারীর অ্যাকাউন্টে পাওয়া গেছে সাড়ে সাত কোটি টাকার মতো অর্থ! অথচ তিনি নিজেকে ভিক্ষুক বলে পরিচয় দেন।ওয়াফা ‘ধরা’ পড়ে যান জামাল ট্রাস্ট ব্যাংক বন্ধ হওয়ার ঘোষণা আসার পর। বিতর্কিত একটি সংগঠনকে আর্থিক সহায়তা করার অভিযোগে ব্যাংকটির বিরুদ্ধে তদন্তে নামে যুক্তরাষ্ট্র। এরপর সেটি বন্ধ করার ঘোষণা দেয়া হয়। লেবাননের কেন্দ্রীয় ব্যাংক গ্রাহকদের আশ্বস্ত করে বলেন, সবার অর্থ নিরাপদে আছে। বুধবার বিকেল থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় দুটি চেকের ছবি ভাইরাল হয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকেই চেক দুটি ইস্যু করা হয়।বলা হচ্ছে একটি চেক ওয়াফার। ব্যাংকে চেক আনতে গেলে কেন্দ্রীয় ব্যাংকটির একজন কর্মকর্তা তাকে চিনে ফেলেন। এরপর তিনি ছবি তুলে পোস্ট করেন।যে হাসপাতালে ওয়াফা ভিক্ষা করতেন, সেখানকার নার্স হানা গালফ নিউজকে বলেন, ‘ওয়াফা দশ বছর ধরে এখানে ভিক্ষা করেন। আমরা তো বুঝতেই পারিনি। তার নাম এখন সবার মুখে মুখে।

এই বিভাগের আরও খবর

  শামসুর রহমান শরীফের মৃত্যুতে শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  আজ থেকে করোনা ভাইরাস নিয়ে কঠোর হচ্ছে সেনাবাহিনী

  বিএনপি দেশের এই দুঃসময়েও জনগণের পাশে নাই: কাদের

  সব কিছু বিবেচনা করে ছুটি সীমিত আকারে বাড়াতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

  মাঠ প্রশাসনের সঙ্গে আগামীকাল কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী

  মিডিয়ার খবরের সঙ্গে সরকারের ব্রিফিংয়ের মিল নেই: রিজভী

  দেশে আরও একজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত

  বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসে মৃত্যু ৩৩ হাজার ছাড়াল

  করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৪ পরামর্শ

  করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার সমবেদনা

  করোনা ভাইরাসে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় কেউ শনাক্ত হয়নি: আইইডিসিআর

https://web.facebook.com/Somoy-news

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন,মাদক সম্রাটতো সংসদেই আছে। তাদেরকে বিচারের মাধ্যমে আগে ফাঁসিতে ঝুলান। আপনি কি একমত?