শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ০৯ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০৪:৩৯

বিএনপির স্থায়ী কমিটির জরুরি বৈঠকে আসতে পারে কর্মসূচি

বিএনপির স্থায়ী কমিটির জরুরি বৈঠকে আসতে পারে কর্মসূচি

ঢাকা: সাম্প্রতিক নানা বিষয়ে আলোচনা করতে বুধবার (৯ অক্টোবর) বিকাল ৫ টায় দলের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম স্থায়ী কমিটির জরুরি বৈঠক ডেকেছে বিএনপি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরে করা চুক্তি, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালযয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ড, হঠাৎ করে দলীয় সাত সংসদ সদস্যের খালেদ জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ এবং তার মুক্তির ইস্যুতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে এক সংসদ সদস্যের বৈঠকের বিষয় নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হতে পারে। গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠকে অনুষ্ঠিত হবে। বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলন করার কথা রয়েছে। বৈঠকের বিষয়ে বিএনপির চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার বলেন, ‘সমসাময়িক বিষয় নিয়ে দলের করণীয় ঠিক করতে দলের স্থায়ী কমিটির জরুরি বৈঠক ডাকা হয়েছে।’ বিএনপির স্থায়ী কমিটির দুই জন সদস্য জানান, বৈঠকে আলোচনা বিষয় তিনটি। এর মধ্যে খালেদ জিয়ার স্বাস্থ্য ও মুক্তির বিষয়টি বৈঠকে নিয়মিত আলোচনা বিষয়বস্তুতে থাকবে। এর বাইরে বৈঠকে আলোচ্য বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরের চুক্তি, বিশেষ করে ফেনী নদী থেকে ভারতকে পানি দেওয়ার যে চুক্তি হয়েছে সেটি বেশি প্রাধান্য পাবে। এই ইস্যুতে কর্মসূচিও দেওয়া হতে পারে। আর সমসাময়িক দেশের পরিস্থিতি মধ্যে থাকবে বুয়েটে ছাত্র আবরার হত্যাকাণ্ড। এক্ষেত্রে হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন বা অন্য কোনও কর্মসূচি দেওয়া হবে। এছাড়া কী কারণে হঠাৎ করে দলের সাত এমপি হাসপাতালে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করলেন, আবার তিনি জামিন পাওয়া মাত্র চিকিৎসার জন্য বিদেশে যেতে রাজি এমন বক্তব্য দিলেন এক এমপি এ নিয়েও আলোচনা হবে। এর পেছনে সরকারের কোনও ইন্ধন আছে কিনা সেটাও আলোচনায় আনা হবে। বৈঠকের আলোচ্য বিষয় সম্পর্কে জানতে চাইলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘এটা আমাদের সাপ্তাহিক নিয়মিত বৈঠক। ফলে প্রধানন্ত্রীর ভারত সফর ও আবরার বিষয়টি আলোচনায় আসা স্বাভাবিক।’ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির স্থায়ী কমিটির এক সদস্য বলেন, ‘আজকের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে আলোচ্য বিষয় ফেনী নদী। তিস্তা চুক্তি ছাড়া ভারতকে ফেনী নদীর পানি দেওয়ার বিষয়ে দলীয়ভাবে বিরোধিতা করা হবে। এ ইস্যুতে লং মার্চের মতো কর্মসূচি দেওয়ার একটা চিন্তা রয়েছে।’ বিএনপির একটি সূত্র জানায়, বৈঠকের আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সংবাদ সম্মেলন পর্যবেক্ষণ করা হবে। এরপর নিজেদের করণীয় ঠিক করবো। এছাড়া সরকারের ক্যাসিনোবিরোধী চলমান অভিযান নিয়ে আলোচনা হবে বৈঠক। বিএনপির স্থায়ী কমিটির একটি সূত্র জানায়, গত সপ্তাহে দলের সাত এমপির হঠাৎ করে দলের চেয়ারপারসন খালেদ জিয়ার সঙ্গে দেখা করার বিষয়টি সম্পর্কে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মনোভাব বোঝার চেষ্টা করা হবে বৈঠকে। এ বিষয়ে তার কাছ থেকে বক্তব্য না আসলে আকার ইঙ্গিতে জানতে চাইবো। তারা কার অনুমতি নিয়ে দেখা করতে গেছেন, এখানে সরকারের কোনও ইন্ধন আছে কিনা এটা আলোচনায় আসবে। বৈঠকে বিষয়ে বিএনপির আরেক স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার বলেন, ‘বৈঠক শেষে সংবাদ সন্মেলনে আলোচনা বিষয় জানানো হবে।’ এদিকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে অবস্থান করছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফলে এ বৈঠকে তিনি উপস্থিত থাকতে পারছেন না। সাধারণত স্থায়ী কমিটির বৈঠকগুলোতে স্কাইপ-এর মাধ্যম লন্ডন থেকে যুক্ত থাকেন তারেক রহমান। আজকের বৈঠকে তার যুক্ত থাকার কথা রয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

  ৭৫-এর পর ২১টি বছর জাতির পিতার নাম মুছে ফেলা হয়েছিল: প্রধানমন্ত্রী

  আজকে চতুর্দিকে যে নিরবতা, শান্ত পরিস্থিতি; এরকম থাকবে না: মেজর হাফিজ

  সর্বত্র বাংলা ভাষার ব্যবহার নিশ্চিত করতে এখনই সময় ব্যবস্থা নেয়া: তাপস

  কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা

  ক্ষমতার অপব্যবহার করে যারা দেশের টাকা বিদেশে পাচার করে তারা জালিম শাসক : ড. কামাল

  সমগ্র জাতি পরাজিত হয়ে যাচ্ছে: ফখরুল

  ইতিহাস ইতিহাসই, কেউ মুছে ফেলতে পারে না: প্রধানমন্ত্রী

  আমরা সমুদ্রের তীর ঘেঁষে উচ্চ-স্থাপনা নির্মাণের অনুমতি দেবো না: প্রধানমন্ত্রী

  উন্নত চিকিৎসার জন্য লন্ডন যেতে জামিনে মুক্তি চান খালেদা জিয়া

  প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগে তারেক রহমানসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা

  অত্যন্ত সুশৃঙ্খলভাবে মুজিব বর্ষ পালন করতে হবে: কাদের

https://web.facebook.com/Somoy-news

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন,মাদক সম্রাটতো সংসদেই আছে। তাদেরকে বিচারের মাধ্যমে আগে ফাঁসিতে ঝুলান। আপনি কি একমত?