শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ,২০১৮

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৭, ০৪:১৯:৪৩

পশ্চিমবঙ্গে ইলিশের বন্যা, বাংলাদেশে নিষিদ্ধ

পশ্চিমবঙ্গে ইলিশের বন্যা, বাংলাদেশে নিষিদ্ধ

ঢাকা : বাংলাদেশে ইলিশ ধরা আপাতত বন্ধ। গত ১ অক্টোবর থেকে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ করেছে সরকার। মূলত মা ইলিশ রক্ষা ও স্বাচ্ছন্দে ডিম ছাড়ার সুযোগ করে দিতেই এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ইলিশ ধরা বন্ধের পাশাপাশি তা পরিবহন, মজুদ, বাজারজাতকরণ বা বিক্রয় নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

 

তবে বাংলাদেশে নিষদ্ধ হলেও পশ্চিমবঙ্গে ইলিশের বাজার কিন্তু এখন বেশ রমরমা। দামে তা এখন পুঁটির চেয়েও সস্তা। তাই সেখানকার ইলিশ প্রেমিক বাঙালি এখন আনন্দের তুঙ্গে। কিছুদিন আগেও হাজার বারোশোর নিচে সেখানকার ইলিশ বাজারে ঢোকা যেত না। আর এক কেজির ওপর ইলিশ ছিল হাজার দেড়েক।

 

কি এমন মন্ত্রকল ইলিশ হার মানল পুঁটির কাছে? আলসেমি ঘুচলো ইলিশের? জাল ভর্তি করে ধরা দেওয়া শুরু করে দিল? আর সব রেকর্ড ছাপিয়ে এত ইলিশের আমদানি কেন?

 

ইলিশ বিশেষজ্ঞদের মতে, তিনটি কারণে বাজারে এত ইলিশ। এক পূবালি বাতাসের জোর। দুই সমুদ্রের দূষণ হ্রাস ও তিনি নতুন ইলিশ কেন্দ্রের সন্ধান। প্রথম দুটি কারণই অবশ্য ইলিশের জোগানে বিপ্লব ঘটিয়েছে। দীঘা থেকে ১৭০–‌১৮০ কিমি দূরের এক ঠিকানাই ইলিশ জোগানে জোয়ার এনেছে বাজারে। সে মাছ দেখতে যেমন, তেমন স্বাদে ও গন্ধে অতুলনীয়।

 

আর দাম সর্বকালের সব রেকর্ডকে ছাপিয়ে গেছে। জলের দামে বিক্রি হচ্ছে ইলিশ। বাজারে এখন ইলিশের দাম ঘোরাফেরা করছে একশো থেকে দুশো'র মধ্যে। ৮০০ গ্রাম ইলিশ মিলছে ৪০০ টাকায়। পুঁটির থেকেও কম দামে মিলছে ইলিশ। এভাবে ইলিশ আসা চলতে থাকলে বাজারে সব থেকে কম দামে ইলিশই বিক্রি হবে।

 

সমুদ্রে দূষণের মাত্রা অনেকটা কমেছে। অল্পমাত্রায় হলেও আটকানো গেছে বিশ্ব উষ্ণায়নকে। বিভিন্ন কারখানার রাসায়নিক ও জাহাজ থেকে সমুদ্রে আবর্জনা ফেলার প্রবণতাও অনেক কমেছে। ফলে সেখানকার মোহনায় ঝাঁকে ঝাঁকে আসছে ইলিশ। দক্ষিণ ২৪ পরগনার নামখানা, বকখালি, রায়দিঘী, কাকদ্বীপ, ডায়মন্ডহারবার থেকে উঠে আসছে জলভর্তি ইলিশের দল।

 

পূবের ঝড়ের ফলে প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল থেকে ব্যাপকভাবে মাছ ঢুকছে সেখানে। খরা কাটিয়ে পশ্চিমবঙ্গে তাই এখন চলছে ইলিশের বন্যা।



 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন,মাদক সম্রাটতো সংসদেই আছে। তাদেরকে বিচারের মাধ্যমে আগে ফাঁসিতে ঝুলান। আপনি কি একমত?