সোমবার, ১৪ জুন ,২০২১

Bangla Version
  
SHARE

বুধবার, ০৯ জুন, ২০২১, ০৭:৫৪:২৪

করোনায় বিশ্বজুড়ে বাড়ছে পুরুষ বন্ধ্যাত্ব, কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা?

করোনায় বিশ্বজুড়ে বাড়ছে পুরুষ বন্ধ্যাত্ব, কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা?

লাইফস্টাইল ডেস্ক: বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের জন্য হৃদযন্ত্র, ফুসফুস বা স্নায়ুর ক্ষতি হওয়ার বিষয়টি বলে আসছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা। সম্প্রতি এক গবেষণায় এমন তথ্য উঠে এসেছে। করোনা সংক্রমণের কারণে পুরুষের যৌন ক্ষমতা হ্রাস পাচ্ছে। চলতি বছরের মার্চে ‘অ্যান্ড্রোলজি’ নামে পুরুষ মনস্তত্ত্ব নিয়ে প্রকাশিত এক আন্তর্জাতিক জার্নালে এমনটাই দাবি করেছেন বিশ্বের কয়েকজন মনোবিদ।করোনা সংক্রমণ পরবর্তী স্বাস্থ্যের বিষয়ে সম্প্রতি ইতালির পুরুষদের ওপর এক সমীক্ষা চালানো হয়েছিল। সেই সমীক্ষার ফলই বলছে এ কথা। সমীক্ষায় দেখানো হয়েছে, করোনা সংক্রমণের কারণে অনেক পুরুষের হৃদযন্ত্র এবং শিরা-ধমনীর বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিয়েছে। এতে করে যৌনাঙ্গে প্রভাব পড়ছে। পর্যাপ্ত পরিমাণে রক্ত পৌঁছাতে পারছে না সেখানে। এসব কারণে সঙ্গমকালে যৌনাঙ্গের শিথিলতা কাটিয়ে উঠতে পারছেন না করোনা আক্রান্ত পুরুষরা।চিকিৎসার পরিভাষায় এটাকে ‘ইরেকটাইল ডিসফাংশন’ (ইডি) বলা হয়। আর করোনায় আক্রান্ত থেকে সুস্থ হওয়ার পর এই ‘ইডি’তে আক্রান্ত হচ্ছেন তারা।পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে বর্তমানে করোনার সংক্রমণ বেশি। তাহলে কী এ দেশটিতেও এমন সমস্যা হবে? প্রশ্ন থাকতেই পারে। দেশটির বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও মনোবিদ সঞ্জয় গর্গ বলছেন, করোনা পরবর্তীকালে এখানে এমনটা হচ্ছে। করোনা ও লকডাউনে অনেক পুরুষেরই উদ্বেগ ও অবসাদ বেড়েছে। এতে যৌন-স্বাস্থ্যে প্রভাব পড়ছে। আবার যারা অবসাদ বা উদ্বেগ কাটানোর ওষুধ খাচ্ছেন তাদের বেলায় ওষুধের প্রভাবে যৌন অক্ষমতা বাড়ছে।ভারতে পুরুষদের মধ্যে সমস্যাটি শুধু করেনার জন্য নয়। অঙ্গগত সমস্যা বা ‘অরগ্যানিক’ সমস্যা হয়তো নেই। কিন্তু তারপরও অনেকে ‘ইডি’তে ভুগছেন। কেননা, সাধারণত পুরুষরা কখনো সঙ্গীর সঙ্গে টানা এতোটা সময় কাটায় না, যতটা সময় করোনাকালে কাটানো হচ্ছে। এতে যৌন চাহিদা বাড়ছে। আর এই চাহিদা মেটাতে গিয়ে অনেক নারী-পুরুষই উল্টো মানসিক চাপে ভুগছেন। ফলে দু’জনেরই যৌন-স্বাস্থ্যের অবনতি হচ্ছে।

https://web.facebook.com/Somoy-news

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন,মাদক সম্রাটতো সংসদেই আছে। তাদেরকে বিচারের মাধ্যমে আগে ফাঁসিতে ঝুলান। আপনি কি একমত?