শনিবার, ০৪ এপ্রিল ,২০২০

Bangla Version
  
SHARE

শনিবার, ২১ মার্চ, ২০২০, ০২:৪২:৩২

করোনা ছড়ানোর অভিযোগে কণিকা কাপুরের বিরুদ্ধে মামলা

করোনা ছড়ানোর অভিযোগে কণিকা কাপুরের বিরুদ্ধে মামলা

বিনোদন ডেস্ক: যুক্তরাজ্য থেকে ফিরে করোনাভাইরাস নিয়ে কয়েকটি পার্টিতে অংশ নিয়েছেন বলিউডের ‘বেবি ডল’ খ্যাত গায়িকা কণিকা কাপুর। তিনি যুক্তরাজ্য থেকে ফিরলেও তথ্য গোপন করে ভারতের লৌক্ষ্ণে এসব পার্টিতে অংশ নিয়েছেন। তিনি যে পার্টিতে অংশ নিয়েছেন সেখানে উপস্থিত ছিলেন উত্তর প্রদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জয় প্রতাপ সিং। এছাড়া সেখানে হোটেলে অবস্থানকালে তার সঙ্গে অনকে মানুষও এসময় সাক্ষাত করেছেন। পরে ডাক্তারি পরীক্ষায় তার শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়লে তথ্য গোপন করে জনসমাগমে উপস্থিত হওয়ায় তার বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়েছে। এদিকে তার সঙ্গে পার্টিতে যারা উপস্থিত ছিলেন তারা এখন করোনা আতঙ্কে দিন পার করছেন। জানা গেছে, বেবি ডল খ্যাত এই গায়িকা অন্তত ১১ দিন আগে যুক্তরাজ্য থেকে ফিরেছেন। তবে এ তথ্য গোপন করায় তাকে কোয়ারেন্টাইনে যেতে হয়নি। তিনি অবলীলায় ঘুরে বেড়িয়েছেন এবং পার্টিতে যোগ দিয়েছেন। কিন্তু পাঁচ দিন আগে হঠাৎ জ্বর-কাশি দেখা দেয়। পরে চিকিৎসকের স্মরণাপন্ন হলে তার পরামর্শ অনুযায়ী করোনাভাইরাস পরীক্ষা করালে ফল পজিটিভ আসে। তাই তিনি আইসোলেশনে গেছেন এবং তার পুরো পরিবার কোয়ারেন্টাইনে আছেন। এদিকে তথ্য গোপন করে সাধারণ মানুষকে বিপদে ফেলার দায়ে বলিউড গায়িকা কণিকা কাপুরের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে উত্তর প্রদেশ পুলিশ। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বলিউড গায়িকা কণিকা কাপুরের বিরুদ্ধে এ দিন এমনই কড়া পদক্ষেপের নির্দেশ দিয়েছেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। শুক্রবার সন্ধ্যায় নিজ বাসভবনে একটি উচ্চপর্যায়ের বৈঠক করেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। সেই বৈঠক থেকেই কণিকার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের সিদ্ধান্ত হয় বলে জানা গেছে। উত্তর প্রদেশের এক উচ্চপদস্থ পুলিশ কর্মকর্তা জনিয়েছেন, ‘উনি লন্ডন থেকে ফেরার সময় করোনাভাইরাস নিয়ে চালু হওয়া বিধি সম্পর্কে অবহিত ছিলেন। তা সত্ত্বেও সেই তথ্য গোপন করেন তিনি। বিমানবন্দরেও তিনি নিয়ম মেনে কোনো শারীরিক পরীক্ষা করাননি। তার পরে করোনা সংক্রমণের উপসর্গ দেখা দিলেও তিনি পার্টিতে যান এবং বহু মানুষের সঙ্গে মেশেন।’ এদিকে উত্তর প্রদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জয় প্রতাপ সিং কণিকার সঙ্গে একই পার্টিতে উপস্থিত থাকায় নিয়ম মতো তিনিও আইসোলেশনে রয়েছেন। করোনা পরীক্ষার জন্য শুক্রবার বিকেলেই তিনি নিজের লালা ও রক্তের নমুনা পাঠিয়েছেন। পার্টির আয়োজক এবং উপস্থিত সবার সঙ্গে যোগাযোগ করে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন স্বাস্থ্য দফতরের কর্মকর্তারা। এ তালিকায় রয়েছেন উত্তর প্রদেশের রাজনীতিবিদ লোকায়ুক্ত এবং বসুন্ধরা রাজেও।

https://web.facebook.com/Somoy-news

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

আজকের প্রশ্ন

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন,মাদক সম্রাটতো সংসদেই আছে। তাদেরকে বিচারের মাধ্যমে আগে ফাঁসিতে ঝুলান। আপনি কি একমত?